ঢাকা ০৮:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১৫:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০২৩ ১৪৫ বার পড়া হয়েছে
NEWS396 অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ এমন একটা দল, যারা সবসময় জনগণের সাথে প্রতারণা করছে, এরা প্রতারক দল, এদের জনগণের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই।

তিনি বলেন, নির্বাচনের তিন মাস পরে আবার সেই আওয়ামী লীগে ভোট দেয়া লোকগুলো বলে ‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে এক আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘গণতন্ত্র রক্ষা ও একদফা দাবি আদায়ে মরহুম সাইফুদ্দিন আহমেদ মনির ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী সমমনা জোট।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এমন ভাবে কথা বলে যেন দেশটা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। তারা ভাবে, এটা আমার, তুমি আবার এর মধ্যে নাক গলাও কেন!’
গতকাল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কথা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তিনি শেষ বার্তা দিয়েছেন, আগামী নির্বাচনে প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থাকবেন, তিনি আবার নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী হবেন। যদি জানেন আপনারা জয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই হবেন, তবে ভোট করার দরকার কি?

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ এমন একটা দল, যারা সবসময় জনগণের সাথে প্রতারণা করছে, এরা প্রতারক দল, এদের জনগণের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই। এরা নির্বাচনের আগে সুন্দর সুন্দর কথা বলে। এসব কথায় আকৃষ্ট হয়ে মানুষ ভোট দেয়। নির্বাচনের তিন মাস পরে আবার সেই আকৃষ্ট হওয়ার লোকগুলো বলে, ‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নাকি আজিমপুর কবরস্থানে পাঠিয়ে দিয়ে কবর দেয়া হয়েছে। যদি এই ব্যবস্থা কবরই দিবেন, তাহলে এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে এত মানুষকে হত্যা করলেন কেন?

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের যে রাজনৈতি, যে সংস্কৃতি তা দুর্ভাগ্যজনকভাবে একদলীয় প্রতিষ্ঠা হয়েছে। একটি রাজনৈতক দল আরেকটি রাজনৈতিক দলকে বিশ্বাস করে না। আজ ৫২ বছর পর ভাবতে হয় নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নিয়ে, অথচ আমাদের আশপাশের দেশ গুলোতে নির্বাচনী সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

তিনি সরকারকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, এখন সময় আছে, সেফ এক্সিট নেন, পদত্যাগ করে সরে গিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এনপিপির চেয়ারম্যান ড ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, জাগপার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম শাহাদত হোসেন, এনপিপির মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, নাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান এস এম শাওন সাদেকি, মাইনরিটি জনতা পার্টির চেয়ারম্যান সুকৃতি মণ্ডল, যুব জাগপার সভাপতি মীর আমির হোসেন আমু প্রমুখ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’

আপডেট সময় : ১১:১৫:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০২৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ এমন একটা দল, যারা সবসময় জনগণের সাথে প্রতারণা করছে, এরা প্রতারক দল, এদের জনগণের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই।

তিনি বলেন, নির্বাচনের তিন মাস পরে আবার সেই আওয়ামী লীগে ভোট দেয়া লোকগুলো বলে ‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে এক আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘গণতন্ত্র রক্ষা ও একদফা দাবি আদায়ে মরহুম সাইফুদ্দিন আহমেদ মনির ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী সমমনা জোট।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এমন ভাবে কথা বলে যেন দেশটা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। তারা ভাবে, এটা আমার, তুমি আবার এর মধ্যে নাক গলাও কেন!’
গতকাল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কথা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তিনি শেষ বার্তা দিয়েছেন, আগামী নির্বাচনে প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থাকবেন, তিনি আবার নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী হবেন। যদি জানেন আপনারা জয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই হবেন, তবে ভোট করার দরকার কি?

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ এমন একটা দল, যারা সবসময় জনগণের সাথে প্রতারণা করছে, এরা প্রতারক দল, এদের জনগণের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই। এরা নির্বাচনের আগে সুন্দর সুন্দর কথা বলে। এসব কথায় আকৃষ্ট হয়ে মানুষ ভোট দেয়। নির্বাচনের তিন মাস পরে আবার সেই আকৃষ্ট হওয়ার লোকগুলো বলে, ‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না’।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নাকি আজিমপুর কবরস্থানে পাঠিয়ে দিয়ে কবর দেয়া হয়েছে। যদি এই ব্যবস্থা কবরই দিবেন, তাহলে এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে এত মানুষকে হত্যা করলেন কেন?

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের যে রাজনৈতি, যে সংস্কৃতি তা দুর্ভাগ্যজনকভাবে একদলীয় প্রতিষ্ঠা হয়েছে। একটি রাজনৈতক দল আরেকটি রাজনৈতিক দলকে বিশ্বাস করে না। আজ ৫২ বছর পর ভাবতে হয় নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নিয়ে, অথচ আমাদের আশপাশের দেশ গুলোতে নির্বাচনী সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

তিনি সরকারকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, এখন সময় আছে, সেফ এক্সিট নেন, পদত্যাগ করে সরে গিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এনপিপির চেয়ারম্যান ড ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, জাগপার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম শাহাদত হোসেন, এনপিপির মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, নাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান এস এম শাওন সাদেকি, মাইনরিটি জনতা পার্টির চেয়ারম্যান সুকৃতি মণ্ডল, যুব জাগপার সভাপতি মীর আমির হোসেন আমু প্রমুখ।