ঢাকা ০৯:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিশু হত্যা মামলায় সৎ বাবা গ্রেপ্তার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৪:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২৩ ১৫৪ বার পড়া হয়েছে
NEWS396 অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফেনীতে তানজিনা আক্তার হামিদা (২) নামের এক শিশুকে হত্যার ঘটনায় জীবন মিয়া (২৮) নামের সৎ বাবাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে শিশু হামিদার মৃত্যুর পর পুলিশ তার সৎ বাবা জীনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়৷

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ফেনী শহরের একাডেমি এলাকায় গত কয়েকদিন আগে ২ বছর বয়সী সন্তানসহ একটি ভাড়া বাসায় ওঠেন জীবন- জোহরা দম্পতি৷ শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে হঠাৎ ওই বাসায় শোরচিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে শিশু হামিদার নিথর দেহ দেখতে পায়।

শিশুর মা জোহরা বলেন, হামিদা তার প্রথম সংসারের সন্তান। যার কারণে তার দ্বিতীয় স্বামী জীবন সব সময় মেয়েটিকে নির্যাতন করতো। শুক্রবার অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটিকে সে শারিরীক নির্যাতন করে হত্যা করেছে। মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন ছিলো।

ঘটনা শুনে স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত জীবনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালায়। এসময় জীবন জানায়, মেয়েটি সন্ধ্যার পর থেকে কয়েকবার বমি করে অসুস্থ হয়ে মারা গেছে। কিন্তু আমার স্ত্রী বিষয়টি নিয়ে অযৌক্তিক আমাকে অভিযোগ দিচ্ছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জীবনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। শনিবার নিহত শিশুর মা জোহরা আক্তার বাদি হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে ওই মামলায় পুলিশ অভিযুক্ত জীবনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

শিশু হত্যা মামলায় সৎ বাবা গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ১২:২৪:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২৩

ফেনীতে তানজিনা আক্তার হামিদা (২) নামের এক শিশুকে হত্যার ঘটনায় জীবন মিয়া (২৮) নামের সৎ বাবাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে শিশু হামিদার মৃত্যুর পর পুলিশ তার সৎ বাবা জীনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়৷

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ফেনী শহরের একাডেমি এলাকায় গত কয়েকদিন আগে ২ বছর বয়সী সন্তানসহ একটি ভাড়া বাসায় ওঠেন জীবন- জোহরা দম্পতি৷ শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে হঠাৎ ওই বাসায় শোরচিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে শিশু হামিদার নিথর দেহ দেখতে পায়।

শিশুর মা জোহরা বলেন, হামিদা তার প্রথম সংসারের সন্তান। যার কারণে তার দ্বিতীয় স্বামী জীবন সব সময় মেয়েটিকে নির্যাতন করতো। শুক্রবার অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটিকে সে শারিরীক নির্যাতন করে হত্যা করেছে। মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন ছিলো।

ঘটনা শুনে স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত জীবনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালায়। এসময় জীবন জানায়, মেয়েটি সন্ধ্যার পর থেকে কয়েকবার বমি করে অসুস্থ হয়ে মারা গেছে। কিন্তু আমার স্ত্রী বিষয়টি নিয়ে অযৌক্তিক আমাকে অভিযোগ দিচ্ছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জীবনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। শনিবার নিহত শিশুর মা জোহরা আক্তার বাদি হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে ওই মামলায় পুলিশ অভিযুক্ত জীবনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।