ঢাকা ০৯:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৯২ রানে পিছিয়ে থেকে শেষ হলো বাংলাদেশের ইনিংস

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৩:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪ ৭১ বার পড়া হয়েছে

শরিফুল ইসলাম ও খালেদ আহমেদের জুটিতে লিড কমিয়েছে বাংলাদেশ

NEWS396 অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ধুঁকতে ধুঁকতে সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ হয়েছে ১৮৮ রানে। প্রথম ইনিংসে ৯২ রানে এগিয়ে থেকে আবার ব্যাটিংয়ে নামবে লঙ্কানরা।

১৩২ রানে ৬ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষ করেছিল বাংলাদেশ। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর শেষ চার উইকেটে আর ৫৬ রান তুলতে পেরেছে স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয় সেশনের শুরুর কিছুক্ষণ পর কাসুন রাজিথার বলে আউট হন তাইজুল ইসলাম।

একপ্রান্ত আগলে রাখা নাইটওয়াচম্যান তাইজুল তখন টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি ছোঁয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু কপাল মন্দ হলে যা হয়! রাজিথার অফ স্টাম্পের অনেক বাইরের বলটা তাড়া করতে গিয়ে উইকেটকিপার কুশল মেন্ডিসের হাতে ক্যাচ দেন তাইজুল। শেষ হয় মূল ব্যাটারদের ব্যর্থতার মাঝে তাঁর লড়াকু ৪৭ রানের ইনিংস।

টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তাইজুলের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

তাইজুলের বিদায়ের পর দলীয় স্কোরে আর ৭ রান যোগ হওয়ার পর আউট হন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১১ রান করেন। তিনিও আউট হন রাজিথার বলে।

এরপর দুই টেলএন্ডার শরিফুল ইসলাম ও খালেদ আহমেদের জুটি থেকে বাংলাদেশ পায় ৪০ রান। ১৫ রান করে শরিফুল আউট হলে এই জুটি ভাঙে। বিশ্ব ফার্নান্ডোর বলে আউট হওয়ার আগে খালেদ করেন ২২ রান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

৯২ রানে পিছিয়ে থেকে শেষ হলো বাংলাদেশের ইনিংস

আপডেট সময় : ০৯:৩৩:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪

ধুঁকতে ধুঁকতে সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ হয়েছে ১৮৮ রানে। প্রথম ইনিংসে ৯২ রানে এগিয়ে থেকে আবার ব্যাটিংয়ে নামবে লঙ্কানরা।

১৩২ রানে ৬ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষ করেছিল বাংলাদেশ। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর শেষ চার উইকেটে আর ৫৬ রান তুলতে পেরেছে স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয় সেশনের শুরুর কিছুক্ষণ পর কাসুন রাজিথার বলে আউট হন তাইজুল ইসলাম।

একপ্রান্ত আগলে রাখা নাইটওয়াচম্যান তাইজুল তখন টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি ছোঁয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু কপাল মন্দ হলে যা হয়! রাজিথার অফ স্টাম্পের অনেক বাইরের বলটা তাড়া করতে গিয়ে উইকেটকিপার কুশল মেন্ডিসের হাতে ক্যাচ দেন তাইজুল। শেষ হয় মূল ব্যাটারদের ব্যর্থতার মাঝে তাঁর লড়াকু ৪৭ রানের ইনিংস।

টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তাইজুলের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

তাইজুলের বিদায়ের পর দলীয় স্কোরে আর ৭ রান যোগ হওয়ার পর আউট হন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১১ রান করেন। তিনিও আউট হন রাজিথার বলে।

এরপর দুই টেলএন্ডার শরিফুল ইসলাম ও খালেদ আহমেদের জুটি থেকে বাংলাদেশ পায় ৪০ রান। ১৫ রান করে শরিফুল আউট হলে এই জুটি ভাঙে। বিশ্ব ফার্নান্ডোর বলে আউট হওয়ার আগে খালেদ করেন ২২ রান।